//টেস্ট হারের ক্ষত ওয়ানডে দিয়ে পূরণ করবে মাশরাফির বাংলাদেশ

টেস্ট হারের ক্ষত ওয়ানডে দিয়ে পূরণ করবে মাশরাফির বাংলাদেশ

টেস্ট সিরিজে বাজেভাবে হেরে গেলেও ওয়ানডে নিয়ে আশাবাদী বাংলাদেশ দল। টেস্ট ক্রিকেটে দুর্বলতা থাকলেও ওয়ানডেতে বাংলাদেশ এক অন্যতম পরাশক্তি। নিজেদের মাঠে সেরা হলেও বাংলাদেশ চায় বিশ্ব দরবারে নিজেদের তুলে ধরতে। মাশরাফির উপস্থিতি দলে নতুন আশার সঞ্চার করবে বলে সবার বিশ্বাস।

ইমরুল বললেন, ‘এখন আমাদের মনোযোগ ওয়ানডের দিকে। টেস্টে যেভাবে প্রত্যাশা করেছিলাম, হয়তো সেভাবে পারিনি। যেটা চলে গেছে, সেটা নিয়ে চিন্তা করে লাভ নেই। যেহেতু সাকিব-মাশরাফি ভাই সবাই চলে এসেছেন, দল ভারসাম্যপূর্ণ হয়েছে।’

“বাংলাদেশের কন্ডিশনে আপনারা জানেন, আমরা শক্তিশালী দল। আমরা প্রমাণ করছি, অ্যাওয়েতে এসে ম্যাচ জেতা সম্ভব। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি থেকে আমরা ম্যাচ জেতা শুরু করেছি। এখানে ভালো একটা সিরিজ হবে। যদি আমরা বেটার ক্রিকেট খেলতে পারি ভালো একটা ফল হওয়া সম্ভব।”

“স্কিলের দিক থেকে আমাদের দলের সবাই তো ভালো। আগের চেয়ে অনেক ভালো। সব শটই খেলতে পারে সবাই। বড় ইনিংসও খেলতে পারে। ওদিক দিয়ে কোনো সমস্যা নাই।”

‘মাশরাফি ভাই থাকলে আমরা একসঙ্গে সবকিছু উপভোগ করি। অনেক মজা করেন তিনি। হয়তো এ কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চাপ অনেক সময় আমরা বুঝতে পারি না। এটা অবশ্যই ইতিবাচক জিনিস। তিনি সবাইকে যেভাবে উদ্বুদ্ধ করেন, অবশ্যই অনেক বড় ব্যাপার।’

অর্জন শুধুই মুসফিকের সেঞ্চুরি

খালেদ মাহমুদ সুজন অসুস্থ থাকায় এই সফরে ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করা নান্নু বলেন, ‘আমাদের ওয়ানডে অধিনায়ক ইতিমধ্যে চারজন সদস্যসহ এখানে এসে পৌঁছেছেন। আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশ অবশ্যই ওয়ানডে সিরিজে ভালো খেলবে মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বে।’

তাছাড়া তামিম ইকবাল ইনজুরির কারনে দ্বিতীয় টেস্ট না খেলতে পারলেও যোগ দিচ্ছেন প্রথম ওয়ানডেতেই এবং টেস্ট ক্রিকেটে ছয় মাসের অবসর নেয়া সাকিবও যোগ দিবেন। সব মিলিয়ে আশাবাদী বাংলাদেশ।